মহারাষ্ট্রে সরকার গঠনে ‘পাওয়ার প্লে’! BJP ও শিবসেনার পর এবার সরকার গঠনের জন্য NCP-কে ডাকলেন রাজ্যপাল

zeenews.india.com

নিজস্ব প্রতিবেদন: মহারাষ্ট্রে মহাজট। শিবসেনার তত্‍পরতায় বড় ধাক্কা। রাজভবনে গিয়েও NCP-কংগ্রেসের সমর্থনের চিঠি দিতে ব্যর্থ উদ্ধবপুত্র। তাই বাড়তি সময় দিতে নারাজ রাজ্যপাল। তাই বিজেপি এবং শিবসেনার পর এবার মহারাষ্ট্রে সরকার গঠনের জন্য NCP-কে ডাকলেন রাজ্যপাল। কংগ্রেসকে সঙ্গে নিয়ে সরকার গড়তে তত্‍পর NCP।

 

মহারাষ্টে সরকার গঠন নিয়ে টানটান নাটক। সোমবার সন্ধেয় নাটকে নয়া টুইস্ট। রাজ্যপালের সঙ্গে দেখা করে সরকার গঠনের জন্য ৪৮ ঘণ্টা সময় চায় শিবসেনা৷ কিন্তু আদিত্য ঠাকরেদের সময় দিতে নারাজ ভগত সিং কোশিয়ারি। এরপরই সরকার গঠনের জন্য এনসিপি-কে ডেকে পাঠান রাজ্যপাল। এদিকে এনসিপি-কংগ্রেসও শিবসেনার সঙ্গে জোট নিয়ে এখনও অবস্থান স্পষ্ট করেনি। জোট শরিক কংগ্রেসের সঙ্গে আলোচনা ছাড়া এনসিপি সরকার গঠনের বিষয়ে কোনও সিদ্ধান্ত নেবে না বলেও জানিয়ে দেন নবাব মালিক। এদিকে আগামিকাল দলের কোর কমিটির বৈঠক ডাকলেন কংগ্রেস সভানেত্রী সোনিয়া গান্ধী।

 

এদিন সন্ধেয় মহারাষ্ট্রের রাজ্যপাল ভগৎ সিং কোসয়ারির সঙ্গে দেখা করে আদিত্য ঠাকরের নেতৃত্বে শিবসেনার প্রতিনিধি দল। দ্বিতীয় বৃহত্তম দল হিসেবে সরকার গঠনের দাবি করেন উদ্ধবপুত্র। তবে এনসিপি বা কংগ্রেসের সমর্থনপত্র দেখাতে পারেনি শিবসেনা। রাজ্যপালের কাছে ৪৮ ঘণ্টা সময় চান আদিত্য। সেই আবেদন খারিজ করেছেন ভগৎ সিং কোসয়ারি৷ পরে সাংবাদিক বৈঠকে উদ্ধব ঠাকরে বলেন, “এনসিপি ও কংগ্রেসের সঙ্গে যোগাযোগ রেখে চলছি। বিধায়কদের সঙ্গেও কথা হচ্ছে। গোটা প্রক্রিয়ার জন্য আমরা ২ দিন সময় চেয়েছিলাম। কিন্তু রাজ্যপাল মঞ্জুর করেননি। দ্বিতীয় বৃহত্তম দল হিসেবে সরকার গঠনের অধিকার রয়েছে আমাদের৷”

এনসিপি ও কংগ্রেসের সঙ্গে জোট সরকার গঠন স্পষ্ট করে দিয়েছেন আদিত্য। কিন্তু কংগ্রেস-এনসিপি এখনও ‘ধীরে চলো’ নীতিতেই হাঁটছে। কংগ্রেস নেতা মল্লিকার্জুন খাড়্গের কথায়,”এব্যাপারে আমরা বিবৃতি দিয়েছি। শরদ পাওয়ারের সঙ্গে কথা বলেছে প্রদেশ কংগ্রেস নেতৃত্ব। আগামিকাল মুম্বইয়ে বিস্তারিত আলোচনা হবে।” প্রদেশ কংগ্রেস নেতা মানিক রাও ঠাকরে বলেন, “এখনও চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হয়নি। শরদ পাওয়ারের সঙ্গে কথা বলতে আমাদের দু’জন নেতা যাবেন।”

 

এরপরই সাংবাদিক ডেকে এনসিপি নেতা অজিত পাওয়ার জানান, রাজভবন থেকে সন্ধে ৮.৩০ নাগাদ ফোন এসেছে। রাজ্যপাল সরকার গঠন নিয়ে কথা বলতে চান। মহারাষ্ট্রে নির্বাচনে শিবসেনা এবং বিজেপি একজোট হয়ে লড়াই করেছিল। ২৮৮ আসনের বিধানসভা আসনের মধ্যে ১০৫টিতে জিতেছে বিজেপি। আর ৫৬টি আসন পেয়ে দ্বিতীয় স্থানে আছে শিবসেনা। অন্যদিকে, ইউপিএ-র দুই শরিক দল এনসিপি ৫৪টি এবং কংগ্রেস ৪৪টি আসনে জয়লাভ করে। প্রসঙ্গত, মুখ্যমন্ত্রী পদের দাবি নিয়ে মহারাষ্ট্রে ভেঙে গিয়েছে বিজেপি-শিবসেনা জোট। দুই শরিকের দীর্ঘ আলোচনার পরও মেলেনি রফাসূত্র। বৃহত্তম দল হয়েও সরকার গঠন থেকে সরে আসে বিজেপি।

আরও পড়ুন – মহারাষ্ট্রে মহাজট! সরকার গঠনে শিবসেনাকে সময় দিতে নারাজ রাজ্যপাল, NCP-কেও আহ্বান





Source link

Latest Govt Job & Exam Updates:

View Full List ...